Technology

করোনা ভাইরাস কি? উৎপত্তি,লক্ষণ প্রতিকার এবং বিস্তারিত

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ১৭০ টির বেশি দেশে। প্রতিটা সরকারের এখন একটাই মাথাব্যথার কারন হয়ে দাড়িয়েছে এই করোনা ভাইরাস। কখনও কি দেখেছেন কোন সরকার প্রধান কেঁদে দেয় ভাষণ দিয়ে গিয়ে? কিন্তু এমনটাই হচ্ছে এখন শুধু এই ভাইরাসের জন্য।

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ১৭০ টির বেশি দেশে। প্রতিটা সরকারের এখন একটাই মাথাব্যথার কারন হয়ে দাড়িয়েছে এই করোনা ভাইরাস। কখনও কি দেখেছেন কোন সরকার প্রধান কেঁদে দেয় ভাষণ দিয়ে গিয়ে? কিন্তু এমনটাই হচ্ছে এখন শুধু এই ভাইরাসের জন্য।

বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস এবং দিন দিন মহামারী আকার নিচ্ছে। এখন এই ভাইরাস নিয়ে আমাদের সকলের জানা প্রয়োজন এবং সচেতন হতে হবে।

করোনা ভাইরাস কি?

করোনা ভাইরাস যার অফিসিয়াল নাম কোভিড১৯ এটি একটি ছোঁয়াচে রোগ এবং করোনা নামক ভাইরাস থেকেই এই রোগ হয়ে থাকে।

এই রোগে আক্রান্ত অধিকাংশ ব্যক্তি হালকা থেকে মাঝারি ধরনের শারীরিক সমস্যা অনুভব করতে পারে প্রথম দিকে।

করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি?

করোনা ভাইরাস প্রথম দেখা দেয় ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে চায়নার উহান থেকে। এবং উহানকেই এর উৎপত্তি স্থান বলা হয়।

প্রথম দিকে অনেকেই ধারনা করছিলো হয়তো এই ভাইরাস আমেরিকার একটি মানব অস্ত্র এবং শুধুমাত্র চায়নার জন্য বানানো হয়েছে।

যাইহোক সবশেষে এটা প্রমানিত যে এটা কোন মানব অস্ত্র না। এবং এটা বাদুড় বা ইদুর জাতীয় প্রাণী থেকে এসেছে।

করোনা ভাইরাসের লক্ষণঃ

করোনা ভাইরাসের লক্ষণ ব্যক্তি ভেদে আলাদা হতে পারে। তবে যাদের বয়স ৬০ বা এর অধিক তাদের বা যাদের আগে থেকেই শারীরিক সমস্যা আছে যেমন ডায়বেটিক, হার্টের সমস্যা, শাঁস কষ্ট বা এই জাতীয় সমস্যা তাদের জন্য এই ভাইরাস খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। যাদের এই ভাইরাসে হালকা সমস্যা আছে তাদের জন্য কোন বিশেষ চিকিৎসার দরকার হয়না।

সাধারন লক্ষনঃ

  • জ্বর
  • কান্তি অনুভব করা
  • হালকা কাশি

অন্যান্য লক্ষণঃ

  • শ্বাসকষ্ট
  • শরীরে ব্যথা অনুভব করা।
  • গলা ব্যথা।
  • তাছাড়া অনেক ব্যক্তি আরো সমস্যা অনুভব করে যেমন (ডায়রিয়া, নাক দিয়ে পানি পড়া ইত্যাদি)

যাদের শরীর আগে থেকেই ভালো এবং হালকা লক্ষণ তাদেরকে শুধু আলাদা রেখেই হালকা চিকিৎসায় তারা ভালো হতে পারে।

কিভাবে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করবেন?

চিকিৎসায় ভালো হবার থেকে সবথেকে সহজ উপায় হলো প্রতিরোধ করা। কিভাবে প্রতিরোধ করবেন?

  1. সাবান দিয়ে ঘন ঘন হাত ধোয়া ।
  2. অন্য মানুষ থেকে কমপক্ষে এক মিটার দূরত্ব বজায় রাখা। বিশেষ করে যারা কাশি বা হাঁচি দিবে।
  3. নিজের মুখ বারবার ছোঁয়া থেকে বিরত থাকা।
  4. হাঁচি কাশি দেবার সময় টিস্যু বা রুমাল ব্যবহার করা এবং সেগুলো নিয়মিত পরিস্কার করা।
  5. অসুস্থতা অনুভব করলে বাড়িতেই থাকা।
  6. ধুমপান বা যেগুলোসকল জিনিস হার্টকে দুর্বল করে দেয় সেগুলো পরিত্যাগ করা।
  7. জনসমাগম এডিয়ে চলা।
  8. ভিটামিন সি যুক্ত ফল এবং খাবার বেশি খাওয়া।

আশা করি এগুলো ফলো করলে আপনি অনেকটাই নিরাপদ এই ভাইরাস থেকে।

কোথায় পাবেন এই ভাইরাসের তথ্য?

করোনা ভাইরাসের তথ্য পাবার জন্য সবচেয়ে ভালো জায়গা গুলো নিচে দেওয়া হলো।

  1. ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন
  2. করোনা ভাইরাস ওয়েবসাইট
  3. গুগল করোনা ভাইরাস ওয়েবসাইট

এছাড়া বাংলাদেশের ভালো পত্রিকাগুলোও করোনা ভাইরাস নিয়ে আপডেট দিয়ে থাকে।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে ২৭ জন আক্রান্ত এবং ২ জন এই ভাইরাসে মারা গিয়েছে। কোন প্রকার গুজবে কান দিবেন না। নিজের যত্ন নিজেকেই নিতে হবে এটা মনে রাখবেন।

Techtunes BD

Average rating:   0 reviews

এ জাতীয় আরো খবর জানতে ভিজিট করুন- ReaLBDnews.com

শেয়ার করুনঃ